জাহাজ, চোরাচালান ও সরবরাহ চেইন অনুসরণ করবেন কীভাবে?

আমরা যা-ই ব্যবহার করি তার প্রায় সবকিছুই এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় পরিবহণ করতে হয়। এটি অনুসন্ধানী সাংবাদিকদের জন্য খুব ভালো। এর মানে, প্রায় সবকিছুকেই অনুসরণ করে তার উৎস পর্যন্ত যাওয়া সম্ভব। কিন্তু এজন্য জানতে হবে শিপিং জগতের নিজস্ব ভাষা আর ব্যবহার করতে হবে কিছু কৌশল।

আপনার অনুসন্ধানী প্রতিবেদন কখন পাঠকপ্রিয় হবে?

অনেক বড় বড় অনুসন্ধান শেষ পর্যন্ত কাঠখোট্টা প্রতিবেদনে পরিণত হয়। এই সব গল্প কখনো পাঠকের বিরক্তির কারণ হয়; আবার কখনো তা বুঝাই অসম্ভব হয়ে দাড়ায়। দুঃখজনকভাবে, এই সব প্রতিবেদনে প্রতিক্রিয়া হয় নেহাত সামান্য অথবা একেবোরেই শূন্য। ফলে মাসের পর মাস ধরে অনুসন্ধানের যে কষ্ট তা একরকম বৃথা হয়ে দাঁড়ায়।

সম্প্রতি ইউক্রেইনের কিয়েভে হয়ে যাওয়া অনুসন্ধানী সাংবাদিকতা উৎসব – মেঝাইরিয়াফেস্টে অনুসন্ধানী গল্প-লিখন বা স্টোরিটেলিংয়ের কিছু কৌশল বাতলে দিয়েছেন অর্গানাইজড ক্রাইম অ্যান্ড করাপশন রিপোর্টিং প্রজেক্ট ওসিসিআরপি’র ইলিয়াস লোজভস্কি। তার সেরা ১২টি টিপস এখানে দেওয়া হল:

সাংবাদিকতায় স্যাটেলাইট ছবি এখন অপরিহার্য, জেনে নিন কীভাবে ব্যবহার করবেন

স্যাটেলাইট ছবি বর্তমানে সাংবাদিকতার একটি অপরিহার্য হাতিয়ার হয়ে উঠেছে। তথ্য উদ্ঘাটন, সুনির্দিষ্ট পরিস্থিতির প্রভাব, জলবায়ু ইস্যু কিংবা সংঘাতময় অঞ্চলের রিপোর্টিংয়ে পক্ষপাতহীন অন্তঃদৃষ্টি পেতে সহায়তা করায় পেশাদার সাংবাদিকরা এটি ব্যবহার করছেন ব্যাপকভাবে।

মোজো ওয়ার্কিং: স্মার্টফোনে প্রতিবেদন তৈরি (পর্ব ১)

আগের মোজো ওয়ার্কিং কলামগুলোতে আমি মোজো ইকুইপমেন্ট, স্মার্টফোনে শব্দ রেকর্ড এবং সম্পাদনা সম্পর্কে লিখেছি। বাদ দিয়ে গেছি, স্টোরি নির্মাণ এবং প্রযোজনার অংশটি, যা একই সাথে সবচে জরুরী আবার হতাশারও। এখন সে বিষয়েই লিখবো। প্রথম পর্বে আলোকপাত করা হবে পরিকল্পনা, স্টোরি তৈরি এবং অনুসন্ধানী দৃষ্টিভঙ্গির ওপর।

অনলাইনে গবেষণা ও অনুসন্ধানের যত কৌশল

ওপেন সোর্স অনুসন্ধানের জন্য সবচে জরুরী টুল হলো সার্চ ইঞ্জিন। এর সাথে যদি সোশ্যাল মিডিয়া, ডোমেইন লুক-আপ এবং সংবাদপত্র ও টেলিফোন ডিরেক্টরির মত প্রথাগত উৎস যোগ করা যায়, তাহলে শুধু ইন্টারনেটে ঘাঁটাঘাটি করেই আপনি অনুসন্ধানী রিপোর্টের জন্য অনেক কার্যকর তথ্য বের করে আনতে পারবেন।